প্রভাবশালী ম্যাগাজিন ফোর্বস ২০১৮ সালে এশিয়া-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের সেরা ৩০ জন উদ্যোক্তার তালিকা প্রকাশ করেছে। ৩০ বছরের কম, সেরা ৩০ এর তালিকায় স্থান পেয়েছেন দুই বাংলাদেশি। তারা হলেন; আইমান সাদিক এবং সাজিদ ইকবাল।
আইমান সাদিক অনলাইন ভিত্তিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ‘টেন মিনিটস’ স্কুলের জন্যে আর সাজিদ ইকবাল পরিবেশ রক্ষায় নবায়নযোগ্য জ্বালানি নিয়ে করা স্বেচ্ছাসেবী প্রতিষ্ঠান ‘চেঞ্জ’র প্রতিষ্ঠাতা হিসেবে সেরাদের কাতারে আসেন।
.
আইমান সাদিককে সবাই চিনেন।বাংলাদেশের স্মার্ট তরুণ তরুণীদের মধ্যে আইমান সাদিককে চিনে না এমন লোক পাওয়া দুষ্কর!
কিন্তু আপনার চারপাশে বন্ধু মহলে জিজ্ঞেস করে দেখুন, সাজিদ ইকবাল কে কয়জনে চিনে? চিনে হয়ত কেউ কেউ।তবে আইমানের মত এতটা ব্যাপক বিসৃত ভাবে নয়।অথচ উদ্যোক্তার মেধা বিচারে, বিষয়ভিত্তিক গুরুত্ব অথবা দৈহিক সৌন্দর্য এবং স্মার্টনেসের দিক থেকে কেউ কোনো অংশে কম নয়।
.
পার্থক্যটা কর্মক্ষেত্রে।এই যুগে সহজে পরিচিতি পাওয়ার খুব সংক্ষিপ্ত এবং সহজ মাধ্যম ফেসবুকের মত জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম; আর ইউটিউব।টেলিভিশনের পর্দায় প্রচারিত হওয়া খবরের চেয়েও ইউটিউব, ফেসবুক, টুইটার___ এসব মাধ্যমে প্রচারণা গুলো খুব দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে।আইমান সাদিক ইউটিউব আর ফেসবুক, ব্লক ভিত্তিক কার্যক্রমে যতটা এগিয়ে, সাজিদ ইকবাল তার তুলনায় অনেক…..অনেক পিছিয়ে।তাই হয়ত তিনি অনেক তরুণের কছে অপরিচিত, অনেক তরুণীর ক্রাশ হওয়া থেকে বঞ্চিত
যেহেতু যুগের ৯০ শতাংশ তরুণ তরুণী সামাজিক মাধ্যমে চরম ভাবে আশক্ত, সেহেতু এইসব ক্রিয়েটিভ প্রতিটি উদ্যোক্তার উচিত অনলাইন ভিত্তিক প্রচারণায় যত্নশীল হওয়া। (প্রমাণিত)
.
.
~ইকরাম জাহির
BUTEX

Love the article? Press Like